July 17, 2024

স্বদেশ Tribune

গণ মানুষের খবর

দঃ আফ্রিকায় রয়েলবেঙ্গল টাইগারদের গর্জন

1 min read

বেলায়েত হোসেন লিটনঃ

দঃ আফ্রিকার সেঞ্চুরিয়ান পার্কে রয়েল বেঙ্গল টাইগারদের গর্জন লক্ষ করা গেছে। টাইগারদের ২০ বছরের মনের আশাও তারা পুরোনও করতে সক্ষম হয়েছে। তিন ম্যাচ ওয়ানডে ট্রেন্ডিং সিরিজের প্রথম ম্যাচে বাংলার টাইগাররা ৩৮ রানে শক্তিশালী দঃ আফ্রিকাকে হারিয়ে ১-০ তে এগিয়ে গেলো। শুক্রবার দঃ আফ্রিকাতে অনুষ্ঠিত তিন ম্যাচ ওয়ানডে ট্রেন্ডিং সিরিজের প্রথম ম্যাচে টসে জয়লাভ করে দঃ আফ্রিকা প্রথমে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়। এবং টাইগারদের স্বাগত জানায় ব্যাটিংয়ে। স্বাগতিকদের সিদ্ধান্তের প্রতি সন্মান জানিয়ে ব্যাটিংয়ে নামে বাংলার টাইগার তামিম ইকবাল ও লিটন কুমার দাস। তারা ওপেনিং জুটিতে ৯৫ রান করে ভালো একটা সূচনা এনেদেয় দলকে। এর উপর ভীত সৃষ্টি করে বাকি ব্যাটসম্যানরা সাছন্দে খেলতে পেরেছে। ইনিংসে তিনটি হাফ সেঞ্চুরি রয়েছে। এর মধ্যে সাকিব দলের পক্ষে সর্বোচ্চ করেছেন ৬৪ বলে ৭৭ রান, যার মধ্যে রয়েছে ৫ টি চার ও তিনটি ছক্কার মার। লিটন কুমার দাস ৬৭ বলে করেছে ৫০ রান, যার মধ্যে ৫ টি চার ও একটি ছক্কা। ইয়াসির আলী ৪৪ বলে করেছে ৫০ রান, ৪ টি চার ও ২ টি ছয়ের মার ছিলো তাতে। এছাড়াও মেহেদী হাসান ১৩ বলে করে ১৯ রান, কোন চারের মার না থাকলেও ছিলো দুটি দৃষ্টি নন্দন বিশাল ছক্কার মার। দলের জন্য অতি গুরুত্বপূর্ণ ১১৫ রানের পার্টনারশীপ খেলেন সাকিব ও ইয়াসির আলী। অতি গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করে এ জুটি। সবমিলিয়ে টাইগাররা ৭ উইকেট হারিয়ে ৩১৪ রান করতে সক্ষম হয় নির্ধারিত ৫০ ওভারে। প্রতিপক্ষের সামনে ৩১৫ রানের বিশাল টার্গেট দেয় টাইগাররা। দঃ আফ্রিকার বোলার জনসেন ৫৭ রান দিয়ে নেয় দুই উইকেট, আর মহারাজ ৫৬ রানেও নেয় দুই উইকেট। দ্বিতীয় ইনিংসে ৩১৫ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে দঃ আফ্রিকা ১৮ রানে মালানের উইকেটটি হারায়। ৩৬ রানে দ্বিতীয় উইকেটের পতন হয় আফ্রিকার এসময় কাইল ভেরিন্নী আউট হোন, ৩৬ রানেই মারিকরাম আউট হলে তৃতীয় উইকেটের পতন ঘটে স্বগতিকদের। এরপর টিমবা বাভুমা ও ভুসেন ৮৫ রানের জুটি গড়েন। সব মিলিয়ে সব কয়টি উইকেট হারিয়ে আফ্রিকা ৪৮.৫ ওভারে ২৭৬ রান করতে সক্ষম হলে টাইগাররা ৩৮ রানের জয় পায়। সেই সাথে ২০ বছরের আক্ষেপ আফ্রিকার মাটিতে সেঞ্চুরিয়ান পার্কে তাদেরকে হারানোর আপসোস পুরোন হয়। আফ্রিকার পক্ষে সর্বোচ্চ ৮৬ রান করেন ভুসে। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৫৭ বলে ৭৯ রান করে মিলার। যার মধ্যে ৮ টি চার ও তিনটি ছক্কার মার ছিলো। তাসকিন ৩৬ রান দিয়ে তুলে নেয় তিন উইকেট এবং ম্যান অফদ্যা ম্যাচ নির্বাচিত হোন। মেহেদী মিরাজ নেয় চার উইকেট এবং শরিফুল নেয় দুই উইকেট। ওয়ানডে ক্রিকেটে ৩ শত রানের বেশি করতে পারলে জয়ের সম্ভাবনা থাকে বলে ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা মনে করেন। তাছাড়া ওয়ানডে ক্রিকেটে কোন স্কোরই এখন আর নিরাপদ নাই বলেও তাদের ধারনা।

স্কোর কার্ড
বাংলাদেশ ৩১৪/৭ – । তামিম ৪১, লিটন ৫০, সাকিব ৭৭, মুশফিক ৯, ইয়াসির ৫০, রিয়াদ ২৫, আফিফ ১৭, মেহেদী ১৯, তাসকিন ৭। জনসেন ৫৭-২, মহারাজ ৫৬-২।
দঃ আফ্রিকা২৭৬/১০ – ডুসেন ৮৬, মিলার ৭৯, টিমবা বাবুমা ৩১। তাসকিন ৩৬-৩, মেহেদী ৬১-৪, শরিফুল ৪৭-২। টস দঃ আফ্রিকা। বাংলাশে ৩৮ রানে ম্যাচ জয়ী। ম্যান অফদ্যা ম্যাচ তাসকিন আহমদ।

More Stories

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Copyright © All rights reserved. | Newsphere by AF themes.